আমার মৃত্যুর জন্য কিস্তির স্যারেরা দায়ী, চিরকুট লিখে পদ্মায় নিখোঁজ বৃদ্ধা-দোহারের সংবাদ – দোহারের সংবাদ
  1. admin@doharersongbad.com : admin :
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দোহারে রাতের আধারে বসতঘরে দুর্বৃত্তদের আগুন,১২ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই-দোহারের সংবাদ শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে আগামীকাল ঈদ-দোহারের সংবাদ নবাবগঞ্জে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার-দোহারের সংবাদ ঈদের তারিখ ঘোষণা করলো সৌদি আরব-দোহারের সংবাদ তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মারামারী,আহত ৭-দোহারের সংবাদ দোহারে এসএসসি-৯৫ ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থী, বন্ধুদের নিয়ে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত-দোহারের সংবাদ গরমের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে দোহার ও নবাবগঞ্জে লোডশেডিং-দোহারের সংবাদ ঢাকাসহ চার বিভাগে হিট অ্যালার্ট জারি-দোহারের সংবাদ সাভারে ৯ ভুয়া সাংবাদিক গ্রেফতার-দোহারের সংবাদ চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিএসএফের গুলিতে যুবক নিহত-দোহারের সংবাদ

আমার মৃত্যুর জন্য কিস্তির স্যারেরা দায়ী, চিরকুট লিখে পদ্মায় নিখোঁজ বৃদ্ধা-দোহারের সংবাদ

দোহারের সংবাদ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১৫৪ বার পঠিত

একাধিক এনজিও থেকে পরিবারে প্রয়োজনে ঋণ নিয়ে পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে চিরকুট লিখে পদ্মা নদীতে মিনু বেগম(৫৫) নামে এক বৃদ্ধা মহিলা নিখোঁজের ঘটনা ঘটেছে।। বুধবার সকালে ঢাকার দোহার উপজেলার নারিশা এলাকায় পদ্মা নদীতে ডুবে ঐ বৃদ্ধা নিখোঁজ হয়েছেন বলে দাবি করেন স্থানীয়রা। মিনু পার্শ্ববর্তী শ্রীনগর উপজেলার মধ্য বাঘরা এলাকার বাসিন্দা। ঢাকা থেকে আগত ডুবরির দল পদ্মায় ৪ ঘন্টা চেষ্টা করেও খুঁজে পায়নি নিখোঁজ মিনুকে।

স্থানীয় সূত্রে জানায়, সকাল ৯টার সময় পদ্মার পাড়ে মিনুকে তারা একা বসে থাকতে দেখেন। অল্প কিছুক্ষণ পর ওই মহিলাকে তারা দেখতে না পেয়ে, পদ্মার তীরে এগিয়ে আসেন। পরে নদীর তীরে মহিলার গায়ে ব্যবহারের বোরখা, মোবাইল ও একটি চিরকুট পড়ে থাকতে দেখেন। চিরকুটে লেখা আমার মৃত্যুর জন্য দায়ী কিস্তির স্যারেরা। পরে অনেক খুঁজেও তাকে পাওয়া না গেলে নিখোঁজ মিনুর মোবাইলে ফোন আসে তার স্বজনদের। কিছুক্ষণ পর তার স্বজন , পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরির দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। ডুবরির দল দীর্ঘক্ষণ পদ্মা নদীতে চেষ্টা চালিয়ে বৃদ্ধাকে উদ্ধারে ব্যর্থ হয়।
মিনুর স্বজনরা জানায়, মিনুর দুই ছেলে প্রবাসে থাকেন। ছেলেরা গত দুইমাস ধরে কোন টাকা পাঠায়নি। ফলে মিনু এনজিওর কিস্তি দিতে ব্যর্থ হয়। অপরদিকে সময় মতো এনজিও কিস্তি পরিশোধ করতে না পাড়ায় এনজিওর কর্মীদের প্রচন্ড চাপ ও অশালীন আচরনে অত্মহত্যার পথ বেছে নেয় সে। এ বিষয়ে দোহারের ফুলতলা ফাঁড়ির পুলিশ পরির্দশক শফিকুল ইসলাম (সুমন) বলেন, ৪ ঘন্টা ঢাকা থেকে আগত ডুবরির দল মিনুর মৃতদেহ উদ্ধারের চেষ্টা করে কিন্তু তার মৃতদেহ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা