মাদক নিয়ে বিরোধ যুবককের বিশেষ অঙ্গে রশি বেঁধে নির্যাতন•দোহারের সংবাদ – দোহারের সংবাদ
  1. admin@doharersongbad.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৯:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দোহারে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে: আটক ৭-দোহারের সংবাদ নবাবগঞ্জে শিশু হত্যার ঘটনায় মা ও ছেলে আটক-দোহারের সংবাদ দোহারে বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালীন সময়ে মারপিটের ঘটনায় রাহিম কমিশনার গ্রেপ্তার-দোহারের সংবাদ দোহারে বেকারীতে অভিযান ২ লক্ষ টাকা জরিমানা-দোহারের সংবাদ চোরের ভয়ে মোটরসাইকেলে হ্যান্ডকাপ পুলিশের! দোহারের সংবাদ দোহারে কোঠাবাড়ির চক থেকে বৃদ্ধের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার-দোহারের সংবাদ সারাদেশে বৃষ্টি কবে হতে পারে, জানাল আবহাওয়া অফিস-দোহারের সংবাদ দোহারে সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলা-দোহারের সংবাদ নবাবগঞ্জে গরু ডাকাতির ঘটনায় আটক-৬-দোহারের সংবাদ দোহারে মৃতপ্রায় ও রোগাক্রান্ত গরুর মাংস বিক্রির দায়ে ৩ জনের জেল-দোহারের সংবাদ

মাদক নিয়ে বিরোধ যুবককের বিশেষ অঙ্গে রশি বেঁধে নির্যাতন•দোহারের সংবাদ

দোহারের সংবাদ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ৩০ জুলাই, ২০২৩
  • ১৭০ বার পঠিত

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে মাদক নিয়ে বিরোধে উলঙ্গ করে বিশেষ অঙ্গে রশি বেঁধে এক যুবককে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতনের ৩ মিনিট ৪১ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এ ঘটনায় রোববার (৩০ জুলাই) সকালে থানায় মামলা হয়েছে।

জানা যায়, কালীগঞ্জ উপজেলার লতাবর এলাকার লুৎফর রহমানের ছেলে সুমন মিয়া একই এলাকার জমসের আলীর ছেলে মিলন মিয়া ও এন্তাজ আলীর ছেলে লিমন মিয়া ভারতীয় চোরাচালানসহ মাদক কারবারের সঙ্গে জড়িত ছিলো। সম্প্রতি আবারও সুমনকে তারা মাদক পাচারের প্রস্তাব দেয়।এ নিয়ে সুমন মিয়ার সঙ্গে মিলন মিয়া ও লিমন মিয়া বিরোধ চলছে। সেই বিরোধের জের ২৫ জুলাই রাতে সুমন মিয়াকে আটক করে নির্যাতন করেন লিমন মিয়া ও মিলন মিয়াসহ তাদের লোকজন।

এক পর্যায়ে একটি রুমে ভিতরে সুমন মিয়াকে উলঙ্গ করে নির্যাতন করা হয়। এ সময় সুমনের বিশেষ অঙ্গে রশি বেঁধেও নির্যাতন করেন তারা। সেই নির্যাতনের ভিডিও ধারণও করা হয়। নির্যাতনের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরালও হয়েছে।ভুক্তভোগী সুমন মিয়া বলেন, ‘তাদের সঙ্গে মাদক পাচারে কাজ না করায় আমাকে ধরে একটি বাড়ির রুমে নিয়ে গিয়ে উলঙ্গ করে। মারধরসহ নানাভাবে নির্যাতন করে ভিডিও ধারণ করে। এ নিয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা করি।’

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মিলন বলেন, ‘আমি সুমনকে নির্যাতন করিনি। অন্য কেউ সুপার এডিট করে আমার মাথা সংযোগ করে দিয়েছে।রোববার সন্ধ্যায় কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইমতিয়াজ কবির জাগো বলেন, এ ঘটনায় চারজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও চার-পাঁচ জনের নামে পর্নোগ্রাফি মামলা হয়েছে। আসামিদের ধরতে পুলিশ তৎপর আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা