বাসায় ডেকে অচেতন করে নিতেন রক্ত, অতঃপর করতেন বিক্রি-দোহারের সংবাদ – দোহারের সংবাদ
  1. admin@doharersongbad.com : admin :
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দোহারে রাতের আধারে বসতঘরে দুর্বৃত্তদের আগুন,১২ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই-দোহারের সংবাদ শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে আগামীকাল ঈদ-দোহারের সংবাদ নবাবগঞ্জে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার-দোহারের সংবাদ ঈদের তারিখ ঘোষণা করলো সৌদি আরব-দোহারের সংবাদ তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মারামারী,আহত ৭-দোহারের সংবাদ দোহারে এসএসসি-৯৫ ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থী, বন্ধুদের নিয়ে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত-দোহারের সংবাদ গরমের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে দোহার ও নবাবগঞ্জে লোডশেডিং-দোহারের সংবাদ ঢাকাসহ চার বিভাগে হিট অ্যালার্ট জারি-দোহারের সংবাদ সাভারে ৯ ভুয়া সাংবাদিক গ্রেফতার-দোহারের সংবাদ চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিএসএফের গুলিতে যুবক নিহত-দোহারের সংবাদ

বাসায় ডেকে অচেতন করে নিতেন রক্ত, অতঃপর করতেন বিক্রি-দোহারের সংবাদ

দোহারের সংবাদ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৩ জুন, ২০২৩
  • ১৮৪ বার পঠিত

লোকজনের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে বাসায় ডেকে নিয়ে অচেতন করে রক্ত সংগ্রহের পর বিক্রির অভিযোগ উঠেছে একটি চক্রের বিরুদ্ধে। এ ঘটনার মূলহোতা আব্দুল জলিলকে (৫৬) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২২ জুন) দুপুরে এমন তথ্য জানান সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স) নয়ন কারকুন। এর আগে বুধবার গভীর রাতে সাভারের থানা রোডের ওয়েল ফুডের দ্বিতীয় তলায় অভিযান চালিয়ে জলিলকে আটক করা হয়। পরে তার বিরুদ্ধে মামলা গিয়ে গ্রেফতার দেখানো হয়।গ্রেফতার আবদুল জলিল পাবনার চাটমোহর থানার মৃত ইমান আলীর ছেলে। তিনি সাভারের থানা রোডের ওয়েল ফুডের দ্বিতীয় তলায় ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন।

পুলিশ জানান, গ্রেফতার ব্যক্তি বিভিন্নজনের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে তোলেন। পরে ওই ব্যক্তিদের কৌশলে তার ভাড়া বাসায় নিয়ে যান। সেখানেই অচেতন করে তাদের শরীর থেকে রক্ত নিয়ে মজুত করতেন। পরে সুযোগ বুঝে রক্তের ব্যাগ বিক্রি করতেন রাজধানীর বিভিন্ন ক্লিনিকে। শুধু তাই নয় অভাব ও নেশাগ্রস্তদের বাসায় ডেকে এনে নেওয়া হতো রক্ত। এমন তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযানে নামে। পরে পুলিশ গভীর রাতে জলিলকে তারা ভাড়া বাসা থেকে আটক করে। এসময় তার কাছে থাকা ১০ ব্যাগ রক্ত ও রক্ত সংগ্রহের বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ করা হয়।গ্রেফতার জলিল বলেন, রক্ত তো জোর করে নেওয়া সম্ভব নয়। কৌশলেই নিতে হয়।এসব রক্ত রাজধানীর বিভিন্ন ব্লাড ব্যাংক ও হাসপাতালে ১ হাজার ২০০ টাকা ব্যাগ হিসেবে বিক্রি করতাম।

সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স) নয়ন কারকুন বলেন, জলিলের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে বুধবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে তিনি অপকর্মের কথা স্বীকার করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা