২১ বছর পর চাচা ভাতিজা আবার মুখোমুখি – দোহারের সংবাদ
  1. admin@doharersongbad.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন

২১ বছর পর চাচা ভাতিজা আবার মুখোমুখি

দোহারের সংবাদ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২৪ জুলাই, ২০২২
  • ৫২৩ বার পঠিত

দোহার পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ২১ বছর আগের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ধুন্ধুমার লড়াইয়ের আমেজ বিরাজ করছে পৌর এলাকায়। উল্লেখ যে সেই নির্বাচনে প্রার্থী হয়ে সরাসরি ভোট যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছিলেন চাচা সালমান এ়ফ রহমান ও ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা দেশ সেরা দুই প্রতাপশালীর পদভারে প্রকম্পিত হয়েছিল দোহারের আকাশ বাতাস,নড়েচড়ে বসেছিল সমগ্র দেশবাসীও । দীর্ঘ ২২ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আলোচিত /সমালোচিত জনগণের আকাঙ্ক্ষিত দোহার পৌরসভা নির্বাচন। নানা চড়াই উতরাই প্রোপাকান্ডায় ক্ষণে ক্ষণে বাঁক পরিবর্তন করছে নির্বাচনি হাওয়া এবং যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন মাত্রা। সর্বশেষ মাত্রায় যুক্ত হয়েছে পরক্ষোভাবে চাচা (সালমান এফ রহমান) ভাতিজা (নাজমুল হুদার) মুখোমুখি অবস্থান। দোহারের আওয়ামীলীগ নেতাদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় সাংসদ ও প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের হস্তক্ষেপে দল নিরপেক্ষ নির্বাচন হচ্ছে দোহার পৌরসভায়।নির্বাচন তফসিল ঘোষণার পর পরই সালমান সাহেব তার অবস্থান পরিষ্কার করেছেন। এরপর উপজেলা চেয়ারম্যান কর্তৃক শপথবাক্য পাঠ করানো, আওয়ামী ঘরানার চার মেয়র প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন ও পাল্টা সংবাদ সম্মেলন এবং সালমান রহমানের অবস্থান কোনো এক নির্দিষ্ট মেয়র প্রার্থীর পক্ষে বলে প্রচারনার চেষ্টা প্রভৃতী ঘটনায় সালমান রহমান এক ভিডিও বার্তার মাধ্যমে জনগণকে অবস্থান আবারও পরিষ্কার করে দেন। তিনি বলেন দোহার পৌরসভা ২০২২ সুষ্ঠু, অবাধ ও দল নিরপেক্ষ হবে। এর জন্য যা যা পদক্ষেপ গ্রহণ করা দরকার তা তিনি করেছেন। কোনো নির্দিষ্ট প্রার্থীর প্রতি তার কোনো সমর্থন নেই,আওয়ামী ঘরানার ৫ জন মেয়র প্রার্থীই তার প্রার্থী এবং আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়ন এর চিত্র তুলে ধরে আওয়ামীলীগে ৫ জন প্রার্থীর মধ্য থেকে যোগ্যতা বিবেচনায় একজনকে মেয়র হিসেবে বেছে নেওয়ার জন্য জনগণের প্রতি অনুরোধ রাখেন। অর্থাৎ তার সমর্থিত প্রার্থী আওয়ামীলীগের ৫ জনই। এদিকে গতকাল বিএনপি ঘরানার এক প্রার্থীর উঠান বৈঠকে সসরীরে উপস্থিত হন সাবেক মন্ত্রী নাজমুল হুদা।তার এই আকস্মিক উপস্থিতিতে গরম হাওয়া লাগে নির্বাচনী পালে। জনগণের স্মৃতিপটে ভেসে উঠে ২১ বছর আগের চাচা ভাতিজার জমজমাট নির্বাচনী লড়াইয়ের প্রতিচ্ছবি।যদিও এবারের প্রেক্ষাপট সম্পুর্ন ভিন্ন এবং চাচা ভাতিজার ক্ষমতার পরিমাণও আকাশপাতাল ব্যাবধাণ তবুও দুধের সাধ ঘোলে মেটানোর মত চাচা ভাতিজার এই মুখোমুখি অবস্থান কে উপভোগ করতে চায় দোহার পৌরবাসী। ২৭ জুলাই ২০২২ অনুষ্ঠিতব্য দোহার পৌরসভা নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ হবে এমনটাই প্রত্যাশা পৌরবাসীর সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় সালমান এফ রহমানের মুখের কথার উপর জনগণের যথেষ্ট আস্থা রয়েছে তিনি যেকথা দেন সেকথা রাখেন বলেও জনগণের অগাথ বিশ্বাস। এবারের নির্বাচনে আওয়ামী ঘরানার যে ৫ মেয়র প্রার্থী রয়েছেন তারা হলেন দোহার উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তি যোদ্ধা নজরুল ইসলাম বাবুল,দোহার উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জয়পড়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জি এস আবদুর রহমান আকন্দ, দোহার উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহসভাপতি বীর মুক্তি যোদ্ধা জাহাঙ্গীর আলম,সাবেক কাউন্সিলর মোঃ আলমাছ উদ্দিন ও ঢাকা জেলা তাতী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি জামাল উদ্দিন আহমেদ। এছারা বাকি ৩ জন মেয়র প্রার্থী হচ্ছেন নুরুল ইসলাম বেপারী,সাবেক কাউন্সিলর ফরহাদ বেপারী ও আমজাদ হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা